Home / পত্রসম্ভার / শব্দ চাষী

শব্দ চাষী

শব্দ চাষী,
বহুদিন পরে অদক্ষ হাতে লিখতে বসা। দুপুর হয়েছে এখন। মিষ্টি রোদ্দুরে ছেঁয়েছে আমার আঙ্গিনা।

শব্দদের সাজাবার প্রক্রিয়া আজকাল প্রায় ভুলতে বসেছি।

লিখতে বসে এখন অভিধানের খাতায় শুধু শূন্যতাদের দেখা মিলছে। কুশলাধি জানতে চাইবো? উহু, এসব আমার সাথে যায় না।

আপনার সাথে প্রথম দিকের আলাপচরিতায় আমি ভীষণ ভাবে চমকেছিলাম। আপনার কথাবর্তা, আপনার মনোভাব অনেকটা আমার বাবার মত।

আমি ভীষণ অবাক হতাম আপনার মতাদর্শে, আপনার হাব ভাবের সাথে আমার বাবার হাব ভাব অনেকটাই মিলে যায়।

আমার মনে হল, তাই বল্লাম আর কি!
একদিন হঠাৎ আপনাকে কথা বলতে শুনেছিলাম।

সব চেয়ে বিস্মীত হয়ে সেদিন আবিষ্কার করেছিলাম, আপনার কথা বলার ঢং টা কেমন যেন আমার বাবার মত!
কি অদ্ভূত তাই না?!
যাক গে এসব কথা।

রোগ শোক নিয়ে দিনকাল কেমন কাটছে? সারাদিন খাওয়ার তালে থাকলে অবশ্য নিজের দিকে খেয়াল রাখার সময় হয় না। খাওয়াটা কমাবার দরকার নেই, তবে খাওয়ার সময় মোবাইলটা অবশ্যই দূরে রাখবেন।

ডিম রান্না আর তক্তি পিঠা বানানোটা ভালো করে শিখবেন। মাছের মাথা রান্নাটাও শিখবেন। একদিন ট্রিট কিন্তু অবশ্যই আদায় করে নেবো৷ বাহিরের খাবার চলবে না, আমি এমনিই ওসব তেমন খাই না।

রেঁধে খাওয়াতে হবে! একটা কারণে আমার খুব হাসি পাচ্ছি, তবে দুঃখবোধও হচ্ছে।
সত্যি! কি কারণে, সেটা নাই বা বল্লাম। কাউকে ক্ষেপানো একদমই অনুচিত। আর পঁচানী দেওয়া তো অন্যায়ই বটে।

একটা কারণে খুব মায়া হচ্ছে, আহারে! সমবেদনা থুক্কু অসমবেদনা। হি হি!
ভালো থাকুন মেঘাচ্ছন্ন আকাশে ভেসে বেড়ানো রঙধনুর মত করে,
ভালো থাকুন অজস্র তারকারাজির মধ্যখানের গোলাকার চন্দ্রটার ন্যায়!
ভালো থাকুন সাহিত্য কথায়, আরো ভালো থাকুন গল্পমালায়।

ভালো থাকুন পায়রার পায়ে বাঁধা ধূসর খামের ভালোবাসায়,
আরো ভালো থাকুন প্রকৃতির নিরবিচ্ছিন্ন কোলাহলের মাঝে। 

ভালো থাকুন আঁধারময় ভুবনে মশাল জ্বেলে,
আর ভালো থাকুন সারে চৌদ্দ কোটি অধিবাসীর আশীর্বাদ সহ!


ইতি
‘শব্দের অভাবে
অভাবী যে জন’

লেখাঃ Mariyam Yasmin

Facebook Comments

About Priyo Golpo

Check Also

আমাকে একবার ছুঁয়ে দেখবে না?

“তোমার সংসার কেমন চলছে?” -“ভালো।” _”বর কেমন আছে?” -ভালো। _”তুমি ভালো আছ?” -“হুম।। ভালো!” …তারপর …

error: Content is protected !!