Home / গল্প / ইফতার পার্টি সমাচার

ইফতার পার্টি সমাচার

আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে বেশ কিছু ইফতার পার্টিতে অ‍্যাটেন্ড করার সুযোগ আমার হয়েছে।
মিথ্যে বলবো না। আগ্রহ নিয়েই গিয়েছি।

একবার একটা গানের অ্যালবামের লঞ্চিং এ ইফতার আয়োজন ছিল। গর্জিয়াস ভেন্যু।
অনেক অতিথি সমাগম। মাইক্রোফোনে হামদ, নাত, কোরান তেলাওয়াত চলছে। পবিত্র পরিবেশ।
টেবিল সাজানো দেখে সবাই খুশী।
লাক্সারি ফুড মেনু।

ইফতার শেষ হলো। এবার নামাজ আদায় করার পালা। কিন্তু এদিক সেদিক ঘুরেও সুবিধা করতে পারলাম না। দুয়েকজন ওয়েটারকে জিগ্যেস করলাম। গা করলো না।
একজন অবাক হয়ে বললো,
: নামাজ বাইরে থেকে পড়ে আসেননি?
আমি হতভম্ব! ব্যাটা বলে কি?
নামাজ পড়ে ইফতারে অ‍্যাটেন্ড করার কৌশলটা কি, তা ভেবে পেলাম না।
মহামুসিবতে পড়ে গেলাম।
কার কাছে জানতে চাইবো? কনফিউজড।

যে সিঙ্গারের দাওয়াতে গেছি, হঠাৎ তাকে ফ্রি পেয়ে গেলাম। চকচকে ব্লেজার পরে সারাক্ষণ সোজা হয়ে হাঁটছে। পাছে না আবার ব্লেজারে ভাঁজ পরে যায়। খুবই কঠিন মামলা!
তাকেই বললাম,
: ভাইয়া, নামাজের জায়গাটা কোনদিকে, বলতে পারো?
সেও ভীষন অবাক হয়ে তাকিয়ে রইল।
দৃষ্টি বলে দিচ্ছে, ‘এমনতো কথা ছিলো না!’

যাই হোক, খোঁজাখুঁজি করে নামাজের জায়গা অনেকটাই দূরে পাওয়া গেল।
ওখানে ইফতার পার্টির অনেককেই দেখলাম।
কারু কারুর সাথে কথাও হলো।
নামাজের জায়গাটা পেতে গিয়ে প্রায় সবাইকেই আমার মতো যুদ্ধ করতে হয়েছে।

ইফতার পার্টি আয়োজনকারীদের প্রতি অনুরোধ, দয়া করে, নামাজের জন্য একটা সুব্যবস্থা রাখবেন!
আফটার অল, এটা পবিত্র রমজান মাস এবং
ইফতারের পরক্ষণেই মাগরিবের নামাজ আদায় করা বাধ্যতামূলক।

লেখাঃ আবদুল জাববার খান

Facebook Comments

About Priyo Golpo

Check Also

গল্প বিচিত্রা – আপনার পড়া উচিত

(১) আজকে বিচিত্রা খুলে অদ্ভুত একটি বিজ্ঞাপন দেখলো সুমি। একজন প্রবাসী লিখেছেন,” আইডিয়াল স্কুল এবং …

error: Content is protected !!