Home / জীবনের গল্প / আমার মডেল বউ আজকাল অনলাইনে শপিং করে!
-my-model-wife-shopping-online-nowadays
-my-model-wife-shopping-online-nowadays

আমার মডেল বউ আজকাল অনলাইনে শপিং করে!

আমার বউ আজকাল অনলাইনে শপিং করে! প্রায়ই দেখি বাসায় কিছু উদ্ভট দ্রব্য সামগ্রী এসে হাজির হয়। এগুলো আদৌ কোন কাজে লাগে কিনা জানি না। সব গুলো জিনিস আবার আমি চিনিও না! গৃহস্থালি তৈজসপত্র কেনার নামে ও যা শুরু করছে তা এক কথায় অসহ্য।

অনেক গুলো টাকা খরচ করে সেদিন একটা রুটিমেকার আনছে! আমি ভাবলাম ভালই হলো সহজে রুটি খাওয়া যাবে! কিন্তু যন্ত্রে তৈরী রুটি খাওয়া যায় না, অনেক শক্ত, স্বাদেও জঘন্য! কয়েকদিন রুটি মেকার নিয়ে ঘটরঘটর করে এখন বাদ দিছে। তাঁর উৎসাহে ভাটা পড়ছে, যন্ত্রে জং ধরেছে আর কোনদিন রুটি বানানো হবে বলে মনে হয়না!

আলু কাটার যন্ত্র, লাউ কাটার যন্ত্র , মিষ্টি কুমড়া কাটার স্পেশাল যন্ত্রও সে অনলাইন থেকে সংগ্রহ করছে! আমি দেখে অবাক হলাম রসুন ছিলার যন্ত্রও অনলাইনে পাওয়া যায়! আমাদের কিচেন এখন আর কিচেন নাই। এটা একটা বিরাট সংগ্রহশালায় পরিনত হয়েছে।
আমার কষ্টের টাকার বারোটা বাজাচ্ছে বউ।

কিছু বলতেও পারিনা। বললেই ঝগড়া করে, প্রতিশোধ মূলক আচরন করে।

সেদিন রাতে হালকা ঝগড়া হইছিল। পরে ব্রেকফাস্টে দেখি তিতা করলা ভাজি করে রাখছে! করলা ভাজি আমার দুচোখের বিষ,রিহানও করলা ভাজি খেতে পারেনা! যেহেতু ঝগড়ার সময় রিহান আমাকে সাপোর্ট করেছে সুতরাং রিহানের কপালেও দুর্গতি !

সেদিন দিখি বাসায় নতুন একটা পার্সেল এসেছে! আমি বললাম
-কি এটা?
– একটা ড্রেস?
– পড়ো দেখি কেমন লাগে।
– এখন না রাতে, রিহান ঘুমালে পরবো !

আমি মুচকি হাসলাম। বউও দেখি হাসে।

আমার তো আর তর সইছে না। বিকাল হয় তো সন্ধ্যা হয়না, সন্ধ্যা হয় তো রাত হয় না। অনেক অপেক্ষার পর রাত হলো কিন্তু রিহান বদের বাচ্চা ঘুমাচ্ছে না! সন্ধ্যার সময় বলেছি, বাবা আজ তোর পড়তে হবেনা ঘুমিয়ে যা। কিন্তু বদের বাচ্চা ঘুমাচ্ছে না।
আমার কিছুই ভাল লাগছে না! কি এমন ড্রেস রিহান না ঘুমালে পরা যাবেনা!

রিহান ঘুমিয়েছে সাড়ে এগারোটায়! বউ ড্রেস নিয়ে শোবার ঘরে গেছে আমি ড্রয়িংরুমে চোখ বন্ধ করে বসে আছি। পরবর্তি নির্দেশ না দিলে চোখ খোলা যাবেনা, বউয়ের কড়া নির্দেশ।

অনেক দিন পর লাইফে একটা টুইস্ট আসছে!

অনেক সাজুগুজু করে রাত বারটার সময় বউ বলে চোখ খোল? আমি দীর্ঘক্ষণ ইমানের সাথে চোখ বন্ধ রাখায় প্রথম ধাক্কায় কিছুই দেখলাম না! একটু পর আস্তে আস্তে সব দৃশ্যমান হলো। আমার বউ আমার সামনে রেম্প মডেলদের মতো ক্যাট ওয়াক করছে!

আমি মহাবিষ্ময়ে বউয়ের দিকে তাকিয়ে আছি,সে একটা পিংক কালারের মিনিস্কার্ট পরেছে। মকমল কাপড়ে তৈরী স্কার্টটা দেখতে অনেক সুন্দর।
কোমড় থেকে ত্রিকোণাকৃতির অনেক গুলো লেজ হাঁটু অব্দি নেমেছে! অনেকটা অক্টোপাসের লেজের মতো দেখতে ! এই ধরনের স্কার্ট সিনামার আইটেম গার্লরা পড়ে ! হিন্দি “দিলবার” গানের রিমিক্সে নায়িকা যে স্কার্ট পরে অনেকটা সে রকম!

মনে মনে ভাবছি, বয়স হলে মানুষ উদ্ভট আচরণ করে! রিহানের আম্মুর তো বেশি বয়স হয়নি! অল্প বয়সে একটা মেয়ে পাগল হয়ে গেল ?

বউ আমাকে চোখ মেরে ইশারা করে বললো,
– ড্রেস টা কেমন হয়েছে?
আমি বললাম,
– কোন দিন মৎসকন্যা দেখিনি। তবে আজ একটা জলজ্যান্ত অক্টোপাস দেখলাম! তোমাকে অক্টোপাসের মতো দেখাচ্ছে। ইচ্ছে করছে বঙ্গোপসাগরে ছেড়ে দিয়ে আসি।

অতঃপর বউ,
– তুই বদ! তোর চৌদ্দ গোষ্ঠী বদ! তুই আগামী একমাস আমার সাথে কথা বলবি না !!!!
– ওকে, তুমি বরং সাগরে চলে যাও। তোমার অক্টোপাস বান্ধবীরা তোমার জন্য অপেক্ষা করছে।

জানি আগামী একমাস করলা ভাজি খেতে হবে তবুও সত্য বলতে আমি পিছপা হইনা!!!

#আমার_মডেল_বউ

— অনিকেত অনি

Facebook Comments

About Priyo Golpo

Check Also

The story of the farmer's son VP ... DUCSU VP Nurul Haque Noor -কৃষক ছেলের ভিপি হওয়ার গল্প ... ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নূর

কৃষকের ছেলের ভিপি হওয়ার গল্প… ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর

পটুয়াখালীর গলাচিপার কৃষক মো. ইদ্রিস হাওলাদারে ছেলে নুরুল হক নুর। শুনেছি নুরের বাবা পারটাইম চা …

error: Content is protected !!