Home / গল্প / আমার আম্মা

আমার আম্মা

আমার আম্মা অত্যন্ত রুপবতী এবং গুনবতী একজন মহিলা আলহামদুলিল্লাহ!! সমস্যা হচ্ছে, উনার কোন প্রশংসা করলেই সেইটা শেষ হয় অদ্ভূতভাবে!! 

সেদিন পুরাতন দিনের ছবির এলবাম ঘাঁটতে যায়া আম্মার শাড়ি পড়া চমৎকার একটা ছবি পাইলাম। ভাবলাম পাম দিয়া ফুলাইলে মাশাল্লাহ্ বিকালে ভালো নাস্তা বানাবে।
– মা, এইটা তুমি?? 
– হুঁ, আমি।
– কোন ক্লাসে পড়তা তখন?? 
– নাইনে পড়তাম।
– সিরিয়াস?? তোমার এই ছবি থেকে তো চোখ সরানো যাইতেসেনা। আয়হায়, এখন কিছুটা শুকায় গেসো দেখি!!

আম্মা কিছুক্ষন আমার দিকে তাকায়া চালায়া দিলো মেশিনগান : ” অবশ্যই আমি সুন্দরী ছিলাম, আমার বাপ মা আমারে অনেক যত্ন করে পালসে। তোর বাপের সংসারে আইসা ঘানি টানতে টানতে আজকে আমার এই অবস্থা। আমি নামে মালকিন, আসলে কাজের বুয়া, কেউ আমারে দাম দেয়না। আমি বইলাই তোদের সংসার করতেসি, অন্যকেউ হইলে ঝাঁটা মাইরা……!”

কয়দিন পরে দেখলাম আম্মা কি একটা জামার উপ্রে লতাপাতা আঁইকা ডিজাইন করতেসে নিজে নিজে। আগেরবারে আমার শিক্ষা হয়নাই, ভুলে বলে ফেললাম,
– মা, তোমার জামার ডিজাইনগুলা কিন্তু ভালো। তুমি এক কাজ করোনা কেন?? মাস্টারি ছেড়ে দিয়ে চলো মাতা পুত্র মিলে একটা বুটিকের দোকান দেই। তোমার ডিজাইন, ফুল, বুটিক সব থাকলো!! কেমন হয়??

আম্মা আবার আমার দিকে তাকায়া মেশিনগান চালু করলো: ” বিয়ের আগে আমি আমার বান্ধবী, চাচী খালাদের অনেক জামা ডিজাইন করসি। তখন আমার একটা মূল্য ছিলো!! এইগুলা সব ধ্বংস হইসে কখন জানিস?? তোর বাপের সংসারে আইসা। আমিতো কাজের বুয়া, এই সংসারে আমার কোন মূল্য নাই। আমি বলেই এই সংসার করতেসি….!”

গতকাল দেখি, টিভিতে এক কনসার্টে গুরু জেমস গান গাচ্ছে। আম্মা দেখি সুর, তাল, লিরিক মিলায়া জেমসের সাথে তাল দিচ্ছে। “লেইস ফিতা লেইস” গানটার পরে শুরু হইলো “সুলতানা বিবিয়ানা সাহেব বাবুর বৈঠকখানা…” গানটা। আম্মা দেখলাম এই গানও মুখস্ত পারে। অথচ উনারে আমি কোনদিন গান গাইতে দেখিনাই আগে।

ন্যাড়া দুইবার বেলতলায় গেলেও তৃতীয়বার কোনভাবেই যায়না। আগেরবারের মত প্রশংসা করলেই ধরা খাইতে হবে। কি শুনবো আমি অলরেডি জানি। উনি বিয়ের আগে অনেক সংস্কৃতমনা ছিলেন, ব্যান্ডের গান শুনতেন ( নগরবাউল এটলিস্ট)!! এগুলা সব ধ্বংস হইসে আমার বাপের সংসারে এসে!! উনার এই সংসারে কোন মূল্য নাই। উনি বইলাই আমাদের সংসার করতেসেন, অন্য কেউ হইলে….!!

©Hazat Sabbir

Facebook Comments

About Nature

Check Also

পোষ্টটি সকলের পড়া প্রয়োজন। আপনি সুখি এবং সফল হবেন।

ব্যক্তিগতভাবে মিনিমাল লাইফ লিড করতে চাই। ডিসট্রাকটন কমে, কাজ অনেক দ্রুত হয়। আমরা যারা নেট/পিসিতে …

One comment

  1. Excellent read, I just passed this onto a colleague who was doing some research on that. And he just bought me lunch since I found it for him smile Thus let me rephrase that: Thank you for lunch!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!